জয়পুরহাটে পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' আহত ডাকাতের মৃত্যুজয়পুরহাট সদর উপজেলার কোমরগ্রাম এলাকায় ডাকাতের সঙ্গে পুলিশের কথিত বন্দুকযুদ্ধে আহত ডাকাত রেজাউল মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার রাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারাত্মক আহত হওয়ার পর পৌনে ১১টার সময় জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাতেই উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়ায় নিয়ে যাওয়ার সময় রাত ৩টার দিকে পথেই তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানায়, জয়পুরহাট-বগুড়া মহাসড়কের কোমরগ্রাম এলাকায় শুক্রবার রাত ৯টার দিকে ডাকাতির প্রস্তুতির খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে ডাকাতরা গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে রেজাউল নামের এক ডাকাতের দুই হাঁটুতে গুলি লেগে গুরুতর আহত হয়। এ সময় তার অন্য সহযোগীরা পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ছুরি ও লোহার রড উদ্ধার করে।

জয়পুরহাট পুলিশ সুপার মোল্লা নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, ডাকাতদল জয়পুরহাট-বগুড়া মহাসড়কের কোমরগ্রাম এলাকায় ডাকাতির চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পুলিশ বাধা দিতে গেলে তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে পুলিশের পাল্টা গুলিতে দুই পায়ে গুলিবিদ্ধ হন রেজাউল। এ সময় পালিয়ে যায় অন্যরা।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য