বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি॥ দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম বলেছেন, হিন্দু বৈদ্ধ, খ্রিষ্টান আদিবাসী সবাই এই মাটির সন্তান। সাংবিধানিক ভাবে ভাল ভাবে বেছেঁ থাকার সবার সমান অধিকার রয়েছে। ডিসি সাহেব দালান বাড়ীতে থাকবে বিশুদ্ধ পানি খাবে আর আদিবাসীরা দুষিত পানি খাবে এটা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হতে পারেনা।

তিনি আদিবাসীদের ইচ্ছা শক্তিতে বলিয়ান হয়ে এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন আপনারা পিছিয়ে থাকবেন না আপনাদের ছেলে মেয়েদের স্কুলে পাঠান সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোতে সম্পৃক্ত থাকেন সরকার, ইএসডিও এবং বরেন্দ্র কর্তৃপক্ষ আপনাদের পাশে আছে কেউ আপনাদের দাবিয়ে রাখতে পারবেনা।

আজ ২৩ জানুয়ারী মঙ্গলবার দুপুরে দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার ৬নং- রনগাও ইউনিয়নের দক্ষিন সাদামহল টুইলাডাঙ্গী আদিবাসী পাড়ায় প্রায় ২০লক্ষ টাকা ব্যায়ে ২৫ হাজার লিটার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন সুপেয় পানির ট্যাংকি নির্মান কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন উপলক্ষে রনগাও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আনিসুর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভা প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

ইএসডিও প্রেমদীপ প্রকল্পের আয়োজনে এবং বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বাস্তবায়নে এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সারওয়ার মোর্শেদ ও বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বোচাগঞ্জের সহকারী প্রকৌশলী মোঃ ইকবাল হোসেন প্রমুখ। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইএসডিও প্রেমদীপ প্রকল্পের সমন্বয়কারী কাজী মোঃ সিরাজুস সালেকিন। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন আদিবাসী নেতা ইলিয়াস হেমব্রম ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রেমদীপ প্রকল্পের টেকনিক্যাল ম্যানেজার ল্যান্ড ও লিগ্যাল সাপোর্ট শাহ মোঃ আমিনুল হক। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রেমদীপ প্রকল্পের টেকনিক্যাল ম্যানেজার মোঃ মোকসেদুল মোমেনিন, উপজেলা ম্যানেজার অরুন চন্দ্র শীল প্রমুখ। এই পানির ট্যাংকি স্থাপনের মাধ্যমে ৩শটি পরিবার সহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উপকৃত হবে। এই পানির ট্যাংকি স্থাপনের জন্য ইএসডিও প্রেমদীপ প্রকল্প দীর্ঘদিন ধরে বরেন্দ্র কর্তৃপক্ষের সাথে কাজ করে যাচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য