05 26 18

শনিবার, ২৬শে মে, ২০১৮ ইং | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) | ১০ই রমযান, ১৪৩৯ হিজরী

Home - রংপুর বিভাগ - ডোমারের ভোগডাবুরী ইউপি সদস্য বিহীন পরিষদ চলছে

ডোমারের ভোগডাবুরী ইউপি সদস্য বিহীন পরিষদ চলছে

ডোমার উপজেলার ভোগডাবুরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে গতমাসে ১১ জন সসদ্য ও সদস্যা অনাস্থা প্রস্তাব দাখিলের পর ইউনিয়ন পরিষদটি দীর্ঘদিন থেকে ইউপি সদস্য বিহীন হয়ে পড়েছে। ইউপি সদস্যরা পরিষদে না যাওয়ায় কারনে সুবিধাভোগী মানুষ ইউপির কার্যক্রম থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

সদস্যরা জানান যে, অভিযোগ করাও সত্বেও সংলিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোন ভুমিকা পালন না করায় আমরা অনুপস্থিত থাকছি ফলে পরিষদটি বেহাল অবস্থার পরিনত হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার ভোগডাবুরী ইউপির চেয়ারম্যান একরামুল হকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা আত্মসাত ও ব্যাপক অনিয়ম, দূর্নীতির অভিযোগ তুলে ১১ জন ইউপির সদস্য সদস্যা ২৩/০১/২০১৮ তারিখে জেলা প্রশাসকের কাছে অনাস্থা প্রস্তাব দাখিল করে। উক্ত তারিখ থেকে পরিষদের সকল কার্যক্রম থেকে বিরত থাকেন ইউপি সদস্যরা।

ইউপি সদস্যরা জানান, সুবিধা ভোগী জনগন পরিষদে গিয়ে তাদের নির্বাচিত সদস্য সদস্যাদের না পেয়ে হতাশ হয়ে ফিরে আসছে। ইউপি সদস্যরা না থাকায় এই পরিষদটি চেয়ারম্যান, একজন ইউপি সদস্য, সচিব, গ্রাম্য পুলিশ দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে।

জানা গেছে, ইউপিতে প্রায় দেড় বছর থেকে গ্রাম্য আদালত বন্ধ রয়েছে। যাহার ফলে ভোগডাবুরীর সাধারণ মানুষ গ্রাম্য আদালতের বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম জানান, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা অভিযোগ দায়েরের পর চেয়ারম্যান তার লোকজন নিয়ে এক ইউপি সদসস্যের গায়ে হাত তুলতে যায়। আমাদের দায়েরকৃত অভিযোগ ও লাঞ্চিত করার সু-বিচার না পাওয়া পর্যন্ত পরিষদে ফিরছিনা।

ভোগডাবুরী ইউপি চেয়ারম্যান একরামুল হক জানান যে, আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার প্রশ্নই আসেনা। ইউপি সদস্যরা পালাক্রমে পরিষদে আসে এবং জন্ম নিবন্ধন স্বাক্ষর করছে।