Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
09 19 18

বুধবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ৮ই মুহাররম, ১৪৪০ হিজরী

Home - রংপুর বিভাগ - আদিতমারীতে স্কুলের গাছ বিক্রির অভিযোগ!

আদিতমারীতে স্কুলের গাছ বিক্রির অভিযোগ!

আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ভেলাবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠের ৫টি মুল্যবান গাছ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষক ও ওই বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে।

App DinajpurNews Gif

গাছ বিক্রির প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকা দুজনের মধ্যে ভাগবাটোয়ারা করে নেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। আর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন একটি প্রভাবশালী মহল ।

জানা গেছে, পবিত্র মাহে রমজানে উপলক্ষ্যে বিদ্যালয় বন্ধ থাকার সুযোগ কাজে লাগিয়ে গত শুক্রবার (১৮ মে) বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও ভেলাবাড়ী ইউপি সদস্য আফছার আলী কোন প্রকার রেজুলেশন ছাড়াই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদা ইয়াসমিনসহ দুজন মিলে বিদ্যালয়ের মাঠের ৫ টি মূল্যবান গাছ বিক্রি করেন।

পরে গাছ ক্রেতা গাছগুলো উত্তোলন করার সময় পার্শ্ববর্তী আরেক ইউপি সদস্য হাফিজ উদ্দিনসহ এলাকার লোকজন বাধা দেয়। বাধা দিয়েও কোন কাজে আসেনি। অবশেষে গাছগুলো অপসারন করা হয় পরে বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি ব্যর্থ চেষ্টা চালান।

সোমবার (২১ মে) এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে আদিতমারী উপজেলা (শিক্ষা অফিসার) এমএন শরিফুল ইসলাম বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে গাছ বিক্রির সত্যতা পেলে তাৎক্ষণিকভাবে প্রধান শিক্ষককে শোকজ করেন। এ বিষয়ে ভেলাবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী বিষয়টি শুনেছেন বলে জানান।

ভেলাবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদা ইয়াসমিন গাছ বিক্রির অভিযোগ এড়িয়ে যান এবং এ বিষয়ে কোন কিছুই জানেন না বলে দাবী করে বলেন, বন্ধের দিনে কে গাছ কাটল এটা আমার দেখার বিষয় নয়।

বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও ইউপি সদস্য আফছার আলীর সাথে মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদের সাথে কথা হলে, তিনি গাছ কাটার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, সকল শিক্ষক মিলে একটি গাছ কাটতে সাত্তার নামের এক ব্যবসায়ীকে বলা হয়েছিল। একটির জায়গায় ৪টি গাছ স্থানীয় শাসকদলের নেতাকর্মীরা কেটে নিয়ে গেছে বলে তিনি দাবী করেন।

আদিতমারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার এমএন শরিফুল ইসলাম সাংবাদিককে গাছ বিক্রির বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত কর বলেন, এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদা ইয়াসমিনকে শোকজ করা হয়েছে।

আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আসাদুজ্জামান বলেন,বিষয়টি জানার পর শিক্ষা অফিসারকে গাছ উদ্ধারসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।