07 17 18

মঙ্গলবার, ১৭ই জুলাই, ২০১৮ ইং | ২রা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ৩রা জিলক্বদ, ১৪৩৯ হিজরী

Home - রংপুর বিভাগ - কুড়িগ্রামে ভাতিজাকে হত্যার দায়ে চাচীর যাবজ্জীবন

কুড়িগ্রামে ভাতিজাকে হত্যার দায়ে চাচীর যাবজ্জীবন

কুড়িগ্রাম পৌর এলাকার গোড়স্থান পাড়ায় মহন্ত রবি দাস (১২) কে হত্যার দায়ে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আপন চাচী বেলী রানী দাসকে দি-পেনাল কোডের ৩০২ ধারামতে দোষী সাব্যস্থ করে কুড়িগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আদালতে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড, ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ মো: আখতার উল আলম-এর আদালত এই রায় প্রদান করেন। আদালতে সমস্ত কাগজপত্র, সাক্ষ্যপ্রমাণ ও যুক্তিতর্কের ভিত্তিতে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় এই রায় ঘোষণা করা হয়।

এ সময় আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এড. মুহা: ফকরুল ইসলাম ও রাষ্ট্রপক্ষে পাবলিক প্রসিকিউটর এড.এস.এম আব্রাহাম লিংকন।

এছাড়া ও আসামী পক্ষে গৃহিত সাক্ষির সংখ্যা ২০ জন এবং অভিযোগ পত্রের সাক্ষির সংখ্যা ২৭ জন।

উল্লেখ্য যে, ২০১৪ সালের ২০ এপ্রিল শিশু রবিদাস তার চাচী বেলীরানী দাসের সাথে বেড়াতে গেলে আর ফিরে আসে নাই। পরদিন ২১ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮ঘটিকায় তার মরদেহ পাশর্^বর্তী হরিকেশ মধ্যপাড়া গ্রামে জনৈক নুরুল ইসলামের ধানক্ষেতে উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় কুড়িগ্রাম সদর থানায় নিহতের পিতা পরেশ রবিদাস বাদি হয়ে বেলি রানী দাস (৩৫) এর নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। দীর্ঘ ৫ বছর পর বিজ্ঞ আদালত এ মামলার রায় ঘোষণা করে।

এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকন জানান, ভাবে শিশু হত্যার ঘটনাটি প্রমাণিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত অভিযুক্ত বেলিরানী দাসকে ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।